• Home
  • বই
  • জীবনী
  • নীতিশিক্ষা, শিশু এবং প্রাসঙ্গিক বিষয়সমূহ

নীতিশিক্ষা, শিশু এবং প্রাসঙ্গিক বিষয়সমূহ

নীতিশিক্ষা, শিশু

এবং

প্রাসঙ্গিক বিষয়সমূহ

 

মাসুদ আহমেদ

 
 
 

উৎসর্গ

 

যারা ‘নিত্য আমায় বেঁধে রাখে’

আয়মান
ফারদিন
রাইয়ান
নাহিয়ান
ফারহান
পূর্ব্বা
প্যাপন
প্রিমা
রিয়া
শুভ্র
উপল-কে
 
 

যা বলতে চাই

 

“আমার সোনা চাঁদের কণা ভুবনে তুলনা নাইরে”

 
 
 
অনন্যসাধারণ গীতি কবি গৌরী প্রসন্ন মজুমদার যখন উপরের এই কথাটি লিখেন এবং প্রতিমা বন্দোপাধ্যায়ের মত অবিস্মরণীয় কণ্ঠশিল্পী যখন এটিতে কণ্ঠ দান করেন তখন এর বাণী ও ধ্বনি হেলা করা যায়না। সংস্কৃতি জগতে বাংলাভাষী মানুষদের কাছে এই দুজনের আসন এবং প্রভাব নিচ্ছিদ্র। গীতি কবি যে কোন মায়ের কাছে তার শিশুর অমূল্য অবস্থানকে কয়েকটি শব্দপুঞ্জের মধ্যে স্থায়ী রূপ দিয়েছেন।
 
জগতে জননীর কাছে তার শিশুটি তুলনাহীন। কিন্তু এই তুলনাহীন শিশুদের একটি অংশ বা কোন কোন সময়ে এবং সমাজের বিরাট অংশ যখন অসংস্কৃত দুর্বৃত্তে পরিণত হয় তখন মনে হয়, এদের মানসিক বিকাশ এবং চরিত্র গঠনে অন্য কিছু করলে তাহলে কি এই পরিণতি এড়ানো যেত? কারণ কবি বলেছেন ‘ঘুমিয়ে আছে শিশুর পিতা সব শিশুদের অন্তরে’। এরও আগে আমরা শুনেছি ‘নিজে যারে ভাল বলে ভাল সেই নয়। লোকে যারে ভাল বলে ভাল সেই হয়’ ও ‘সারাদিন আমি যেন ভাল হয়ে চলি’। 
 

“ছোট কালে না নোয়ালে বাঁশ

পাকলে করে ঠাস ঠাস”।

 
এই যে কথাটি তা মানব শিশুর জন্য কতটা গুরুত্বপূর্ণ সে ব্যাপারে মানব জীবন ও প্রকৃতির রহস্য উদ্ঘাটনে সদা নিয়োজিত পাশ্চাত্যের সমাজ দীর্ঘ দিন ধরে প্রচুর পরিশ্রম করে চলেছে এবং তার বেশ কিছু ফলাফল প্রমাণসহ পাওয়া গেছে যা প্রণিধানযোগ্য। সে বিষয়ে আসার আগে এই বিষয়ে বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটি উক্তিকে স্মরণ করা অত্যন্ত প্রাসংগিক হবে বলে মনে করি। উক্তিটি  হলÑ “পশু পাখি সহজেই পশুপাখি, তরুলতা সহজেই তরুলতা কিন্তু মানুষ প্রাণপণ চেষ্টায় মানুষ”। 
 
এই প্রাণপন চেষ্টার মধ্যে প্রবৃত্তি ও স্বাভাবিক আনন্দ প্রবণতা তথা যে কোন সুখ লিপ্সাকে সংযমের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করার প্রয়োজনকেই কবি বুঝিয়েছিলেন। এই চেষ্টা তথা যুদ্ধের জন্য ভবিষ্যতের মানুষের সঙ্গে বর্তমান কালের শিশুর সম্পর্কের সূত্র অনুসন্ধান করা যুক্তিযুক্ত বলে অনেক মণিষীর মনে হয়েছিল। এই সব কথা কোন বয়সের মানুষের জন্যে প্রযোজ্য? শিশুকালে যা প্রথিত করা হয়নি প্রাপ্ত বয়স্ক হবার পর তার কতটুকু প্রথিত করা যায় বা যাবে? 
 
এমনকি উদ্ভিদ জগত সম্বন্ধে একজন মনিষির করা মন্তব্যেও মনে হয় যে, কোন কিছুর ফল লাভের জন্য বপনকালে সবচেয়ে মনোযোগ দেয়া প্রয়োজন।
 
তাহলে প্রশ্ন দাঁড়াচ্ছে প্রবৃত্তির কাছে ছেড়ে দিলে মানুষ কি মানুষ হবে?এই প্রাণপণ চেষ্টাটি কখন করতে হবে? সমাজ বিজ্ঞানীরা বিশ্বকবির এই উক্তির মর্মবাণী গভীরভাবে বুঝতে ভুল করেননি।
 
শিশুরা যে পরিবেশ এবং ভাষা বুঝতে পারে এবং তা থেকেই কোন কিছুর সংজ্ঞা নির্ণয় করতে পারে সে ব্যাপারে পাশ্চাত্য, গবেষণা ও পর্যবেক্ষণর মাধ্যমে যা উদ্ঘাটন করেছে এবার সেই বিষয়ে আলোকপাত করা যেতে পারে।
 
প্লেটো, হেরাডোটাস এবং অগাষ্টিন এর মত বিশ্বমাপের দার্শনিকরা মানবজীবন সম্পর্কে নানা বিষয়ের মধ্যে একটা কথা ভাবতেন। তাহল মানব শিশু কোন্ বয়স থেকে ভাষা শিখতে এবং বুঝতে পারে বিষয়টা? অনুমান করতে পারলেও বিজ্ঞানের তত্ত্ব সুপ্রমাণিত করার উপায় উপকরণ তখনো আবিষ্কৃত না হওয়াতে তারা এটা প্রমাণ করতে সক্ষম হননি। অনেক পরে ১৭৮৭ সালে জার্মান দার্শনিক টাইডম্যান তাঁর শিশু পুত্রের জন্মলগ্ন থেকে আড়াই বছর বয়স হওয়া পর্যন্ত সময়কালের ভাষাবোধ সম্পর্কে কৌতুহল উদ্দীপক কিছু পর্যবেক্ষণ লিপিবদ্ধ করেন। এর মর্ম হচ্ছে এই যে এই বয়সেই শিশুরা নিজের ভাব প্রকাশের চেয়েও অন্যের ভাবভংগী বোঝার প্রয়োজনেই ভাষার অর্থ বুঝতে চেষ্টা করে এবং এতে তাঁরা সফল হয়। তার মানে কথা বলতে শেখার বেশ আগেই সে অন্যের কথার অর্থ বুঝতে পারে। প্রকৃতি তাকে এই সক্ষমতা প্রদান করে।
 
পরে এ্যান ফেরনাণ্ড গবেষণা করে সন্দেহতীতভাবে প্রমাণ করেন যে শিশুরা কথা বলতে শেখার অনেক আগেই আশেপাশে শ্র“ত ভাষা সম্পর্কে অনেক কিছুই শিখে ফেলে। চার্লস ডারউইনও তার এক বছর বয়স হয়নি এমন পুত্র সম্পর্কে এই অভিজ্ঞতার কথা লিখেছিলেন। তাহলে দেখা যাচ্ছে শিশুদের বোধশক্তি সম্পর্কে প্রচলিত ধারণা বিশ্বের নানা স্থানে যা ছিল বিজ্ঞান তাকে ভিন্নরূপে সত্য বলে প্রমাণিত করেছে। এখন প্রস্তাবনা যেহেতু ‘শিশু ও নীতিশিক্ষা’ সেহেতু শিশুর ভাষা জ্ঞানের মাধ্যমে আহরিত নানা বোধের সংগে সংগে নৈতিকতা সংক্রান্ত শিক্ষাও অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত হয়ে পড়ে।
 
নীতি শিক্ষা এমন একটি বিষয় যা মনস্তত্ত্ব ও শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাপী ক্রমবর্ধমান হারে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। এর কারণগুলোর মধ্যে সংবাদ মাধ্যমে শিশুদের বল প্রদর্শনজনিত অপরাধ, অল্প বয়সে গর্ভধারণ ও আত্মহত্যা সংক্রান্ত সংবাদের ক্রমবর্ধমান প্রচার। এতে অনেকেই মনে করছেন যে সমাজে নৈতিক সংকট ও অবক্ষয় মারাত্মকভাবে দেখা দিয়েছে। যদিও এইসব সামাজিক উদ্বেগের সবগুলোই প্রকৃতির দিক থেকে নীতি সংক্রান্ত নয় এবং এগুলোর অধিকাংশেরই রয়েছে জটিল উৎস। সমাজের স্বাভাবিক প্রবণতা হচ্ছে বিভিন্ন বিদ্যায়তনে প্রদত্ত নৈতিক ও সামাজিক মূল্যবোধ সংক্রান্ত শিক্ষা ব্যবস্থার সংগে এই নেতিবাচক আচরণগুলোর যোগসূত্র খোঁজা।
 
কোন কোন সমাজে আবার অল্পবয়সীদের নৈতিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে স্কুলের ভূমিকা একটি বিতর্কিত বিষয়। অনেকে এ বিষয়ে গবেষণা লব্ধ তথ্যগুলোর ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা ও বিশ্বাসকে বেশী মূল্য দিয়ে থাকেন। সৌভাগ্যবশতঃ গত শতাব্দি ধরেই বিষয়টির উপর কাঠামোগত এবং সুবিন্যস্ত গবেষণা কর্ম চলে এসেছে এবং সেখান থেকে এমন কিছু ফল পাওয়া গেছে যা এই বিষয় সংক্রান্ত কার্যক্রমে প্রণিধানযোগ্য।
 
নৈতিক উন্নয়ন সংক্রান্ত সমসাময়িক তত্ত্বগুলোর মধ্যে যার অবদান সবচেয়ে তাৎপর্যপূর্ণ তিনি হচ্ছেন ঔবধহ চরধমবঃ। অল্প বয়সে লেখা তার তত্ত্বের মধ্যে ক্রীড়ারত শিশুদের আচরণের মধ্যে তাদের জীবনের নৈতিকতাবোধ এর ভিত্তি সম্পর্কে শিশুদের বিশ্বাসের উপর তাঁর পর্যবেক্ষণ সুধী মহলে যথেষ্ট মনোযোগ আকর্ষণ করে। এই মনস্তত্ত্ববিদ মনে করতেন যে পরিবেশের সংগে পারস্পরিক ক্রিয়া-প্রতিক্রিয়ার ফলাফলের উপর ভিত্তি করেই ব্যক্তি তার জ্ঞানকে ক্রম নির্মাণ ও পুনঃ নির্মাণ করে চলে। তিনি মারবেল খেলা নিয়ে একটি শিশুর মন্তব্যকে কেন্দ্র করে নৈতিকতা ও অনৈতিকতার সূত্রের সন্ধান পান। ঐ শিশুটি বলেছিল যে মারবেল খেলায় প্রচলিত ব্যকরণের বাইরে কোন বিধির প্রয়োগ ভুল হবে। কারণ যেহেতু তা ব্যকরণ বহির্ভুত। কেবল ব্যকরণের অন্তর্ভুক্ত বিধিই সঠিক। আরেকজন খেলোয়াড় অবশ্য বলে যে একটি নতুন বিধিও পুরনো বিধির মতই ন্যায় সংগত হতে পারে। যখন এই নতুন বিধি প্রণয়ন সত্ত্বেও খেলাটি আগের মতই কঠিন হয়ে থাকে।
 

Specifications

  • বইয়ের লেখক: মাসুদ আহমেদ
  • আই.এস.বি.এন: ৯৮৪৭০২১৪০০৮২৯
  • স্টকের অবস্থা: স্টক আছে
  • ছাড়কৃত মূল্য: ৭৫.০০ টাকা
  • বইয়ের মূল্য: ১০০.০০ টাকা
  • সংস্করণ: দ্বিতীয় প্রকাশ
  • পৃষ্ঠা: ৭২
  • প্রকাশক: হাক্কানী পাবলিশার্স
  • মুদ্রণ / ছাপা: টেকনো বিডি ইন্টারন্যাশনাল
  • বাঁধাই: Hardback
  • বছর / সন: ফেব্র“য়ারী : ২০১৪

Share this Book

Sky Poker review bettingy.com/sky-poker read at bettingy.com